Sunday, July 17, 2016

দৈনিকভাবে ৫০০$ ইনকাম করুন (সর্বনিম্ন ২$)।



দৈনিকভাবে ৫০০$ ইনকাম করুন (সর্বনিম্ন ২$)।
       

                             


স্বাগতম আপনাদের, দেখুন আপনারা যারা এখন এই আর্টিকেলটা পড়তেছেন, তারা অত্যন্ত ভাগ্যবান মনে করতে পারেন নিজেকে। খুব মনোযোগ সহকারে পড়বেন। 

                                       

হ্যালো, 
আমার ব্লগে আপনাকে আরেকবার স্বাগতম জানাচ্ছি। বর্তমানে পেসিভ ইনকাম একটি জনপ্রিয় কাজ যা আপনি যেকোন স্তর থেকে করতে পারবেন। আপনি যদি ছাত্র হোন তাও কোন সমস্যা নেই। কারন আপনাকে কোন কাজ করতে হবেনা অনলাইনে। হ্যা তবে করতে হয়না বললে ভূল হবে। য করলে বেশি লাভ পাবেন & না করলে কম লাভ হবে। যদি একটু পরিশ্রমী হয়ে থাকেন জীবনে সাইন করতে পারবেন।

                                               

পেসিভ ইনকাম কি?
পেসিভ ইনকামঃ ধরেন আপনি একজনকে টাকা দিয়েছেন সে আপনাকে অনেক বছর টাকা দিবে। সহজ কথায় পেসিভ ইনকাম এটাই। আপনি এমন একটা পেসিভ ইনকামের আর্টিকেল পড়তেছেন আপনি ৭০% সাকসেস। এটা কোন বানানো গল্প নয়। হয়তো ভাবতে কষ্ট হচ্ছে যে একজনকে টাকা দিবো একবার সে কি অনেক বছর টাকা দিবে। ব্যাপারটা এরকমি পেসিভ ইনকামের বেলায়। 


                                           

 কিছু প্রশ্ন আপনার জন্যেঃ
১)আপনি কি খুব চিন্তিত?
২)টাকা আয়ের রাস্তা খুঁজে চলেছেন?
৩)কিন্তু কোন কিছুই কাজ হচ্ছেনা?
৪)অনলাইনে অনেক খোজাখুঁজি করেন টাকা আয় করার জন্যে?
যদি উত্তরটা হ্যা বলেন তবে য উত্তরটা হ্যা ছাড়া না বলবেন না ৯০%। যদিও আপনার মনে হবে আমি গল্প বলতেছি বলে মনে হবে। দিয়ে দৈনিক ডলার আয় করবেন সর্বনিম্ন ২$ পাবেন। এটা কোন গল্প নয় একটা বাস্তব পরীক্ষিত আয় বা ইনকাম।

                                           






"অনলাইনে অায় করুন" দিয়ে যখন আপনি google.com গিয়ে খুঁজবেন হাজার রকমের উপায় আসবে।তখনি আমরা দিশেহারা হয়ে যাই। আমরা আসলে ববুঝে উঠতে পারিনা কোন কাজটা করলে আমরা তারাতারি আয় করতে পারবো।

আপনি কোনটা করবেন? 
                                                  

আমি নিজে অনেক খুঁজেছি এ ব্যাপারে। বিশ্বাস করুন প্রায় ৭ মাস সময় নষ্ট করেছি।অনেক টাকা নষ্ট করেছি মেগাবাইট কিনে কিনে। একটা টাকাও ফেরত পায়নি,আমি জানি এখন আপনারও এমন অবস্থা। দেখুন কোন কিছু করতে হলে যদি সঠিক আইডিয়া না পান তবে  অনেক কষ্ট হয় সফল হতে। অনেকে আছে জন্মগতভাবে লাভ করে। যেরকম নামিদামী মানুষের বা নায়কের ছেলে-মেয়ে নায়ক নায়িকা হবে কিংবা নামিদামী হবে এটাই স্বাভাবিক। আর অনেকে আছে কঠোর পরিশ্রম করে নামিদামী হয় কিংবা নায়ক নায়িকা হয়। আপনি দুইটার মধ্যে কোনটা বেছে নিবেন? সহজটা হলো জন্মগতভাবে পাওয়াটা।সব ক্ষেত্রে অবশ্যে এই ফর্মূলাটা কাজ করবেনা কিন্তু এই ব্যাপারে ১০০% কাজ করবে। আমি আপনাকে সিস্টেমটা বলে দিবো। যা আপনি ফ্রি বা জন্মগতভাবে পাচ্ছেন। আপনাকে আর কষ্ট করে খুঁজতে হবেনা উপায়।

নিজেকে কি করে সফল করবেন সেটা সম্পূর্ণ আমার দায়িত্ব। তবে আপনাকে আমার নির্দেশনা অনুযায়ী কাজ করতে হবে। বাকিতা আমি গ্যারান্টি দিয়ে বলতে পারি আপনি পারবেন ৯৯%। ৭০% কাজ নিজে নিজে করতে পারবেন বাকিটা আমার নির্দেশনা মত কাজ করলে তাহরে আপনি স্বাবলম্বী।




                                         

প্রয়োজনীয় উপকরণঃ

১)এন্ড্রয়েড মোবাইল।
২)নিজের একটি ইমেইল।
৩)পাইজা/বিটকন/পারফেক্ট মানি একাউন্ট।
৪)ভোটার আইডি কার্ড (একাউন্ট ভেরিফিকেশন করার জন্যে)।
৫)বিকাশ একাউন্ট(যাদের Payza/PerfectMoney account থাকবে তাদের জন্যে নয়)

বিকাশ কেন?

                                                    

বিকাশ একাউন্ট লাগবে আপনার প্যামেন্ট নিতে।কোম্পানির তরফ থেকে আপনাকে ডলার দেয়া হবে কিন্তু ঐ ডলার আপনাকে নিতে হলে Payza account ধরকার হয়। কিন্তু হাতেগোনা কয়েকজন মানুষ বাদে Payza কি জিনিস বুঝেনা। Payza একাউন্ট থাকলে আপনি যেকোন ব্যাংক থেকে টাকা তুলতে পারবেন। সেটা যারা Payza সম্পর্কে জানাশুনা আছে তারা এতক্ষণে বুঝে পেলেছেন। সোজা কথায় বললে টাকা নেয়ার সময় লাগবে।

প্রুভম্যান্টঃ
সম্প্রতি ক্যাশআউট করা কিছু ছবির প্রুভম্যান্ট দেখুন পাইজার মাধ্যেমে।

          

                                                       

                                                         


এমবিসি মানুষকে এমন পর্যায়ে নিয়ে যাবে হয়তো আমরা কল্পনাও করতে পারতেছিনা। নিজস্ব মাস্টার কার্ড, অফিস এবং ৫/৬ টা সিকুরিটি কম্পানি স্বীকৃত এমবিসি। একটা ছোট্ট টিপসস সবার জন্যে মনে রাখবেন যেসব সাইট আপনাকে লাভ কম দিবে সেসব সাইট কোনদিন মার্কেট থেকে উদাও হবেনা। হয়তো আপাতঃ দৃষ্টিতে লাভের পরিমান কম হতে পারে কিন্তু নিরলসভাবে যদি ৬/৭ মাস কাজ করা যায় তবে বাইনারি ইনকামটা খুব কম হলেও মাসিক ২০-৪০$ আসবে সেটা আমি ৯০% নিশ্চিত করে বলতে পারি। সবাইকে বলবো অন্ততঃ একবার হলেও এমবিসিকে বিশ্বাস করুন। এমবিসি কোনদিন কাউকে থকাবেনা।কতো টাকা কতো পারপাসে নষ্ট করি আমরা। সামন্যে টার্চ এন্ড্রয়েড মোবাইলের কথায় ধরুন। হাত থেকে যদি অনাবশ্যকীয়ভাবে পরে যায়।তবে কথায় নেই নির্গাত ১৫০০-২০০০ টাকা জলে গেছে। সে তুলনায় ৩০$=২৪০০টাকা কি বেশি?? তাও যদি প্রতি ডলারে রেট ৮০ টাকা হয়। শুরুটা যদিও অনেক কষ্টের এতোগুলি টাকা একসাথে জোগাড় করা। কিন্তু কিছু পেতে গেলে একটু কষ্টতো করতেই হবে তাইনা। চেষ্টা করলে কোন অসম্ভব বলে কিছু নেই। এখানে ব্যাক্তিগতভাবে কাজ করা যায়না, একটা কমিউনিটিতে কাজ করতে হয়। কারণ রেফারেলের ব্যাপার সেপার আছে। তাই যদি কাজ না বুঝে থাকেন আপনি যার মারফটে একাউন্ট করবেন তার থেকে পুরো কাজটা বুঝে নিবেন। যদি কাজ না বুুঝেন এক্ষেত্রে আপনি দ্রুত ইনকাম করতে পারবেন না। কারণ যখন আপনি রেফারেল বাড়াতে যাবেন তখন সেই লোকগুলি আপনাকে প্রশ্ন করবে কাজটা কি? তখন তাদের কে যদি পুরোপুরি কাজটা বুঝাতে পারেন তবে আপানার কাজ শেষ। এভাবে যখন দেখবেন ১৫/২০ জন রেফারেল জোগাড় করতে পারবেন আর কাজ করতে হবেনা আপনাকে। কারণ আপনার পরে জয়েন্ট করবে সবাই আপনার রেফারেল। ১/২ বছর পরে আর কাজ করতে হবেনা। তখন শুধু বসে বসে ডলারে অংকাটা  গুনবেন। এটা কোন গল্প না এটা একটা বাস্তব কথা। 

অনেক দীর্ঘায়ত হলো লেখাটা মনে হলো আরো লিখি পরে আরেক সময় ----
     

দৈনিকভাবে ৫০০$ ইনকাম করুন (সর্বনিম্ন ২$)। Rating: 4.5 Diposkan Oleh: Unknown Boy

0 comments:

Post a Comment

Find US On Facebook

Total Pageviews